ভরাপেটে মিষ্টি খাওয়ার কিছু স্বাস্থ উপকারিতা

ভরাপেটে মিষ্টি খাওয়ার কিছু স্বাস্থ উপকারিতা

922
0
SHARE

খাবার শেষপাতে মিষ্টি, আইসক্রিম বা পায়েস জাতীয় কোনও মিষ্টি না হলে যেন বাঙালির খাওয়া সম্পূর্ণ হয় না। ভরাপেটে মিষ্টি খাওয়ার এই অভ্যেস শরীরে কী ধরনের প্রভাব ফেলে? শেষপাতে মিষ্টি শুধু কি ক্ষতিই করে, নাকি এর কোনও ভাল দিকও রয়েছে? লাঞ্চ বা ডিনারের শেষে মিষ্টি খেলে শরীর কিন্তু নানা ভাবে উপকৃতও হয়। কী রকম? আসুন, জেনে নিই—

১. যখনই আমরা কিছু খাই, তখন সেই ভুক্ত খাদ্যকে হজম করার জন্যে আমাদের শরীরের অভ্যন্তরে অ্যাসিড ক্ষরণ শুরু হয়। ঝাল বা তেলমশলাযুক্ত খাবার খেলে অ্যাসিড ক্ষরণের পরিমাণ বাড়ে। বিপরীতক্রমে মিষ্টি খাবার এই অ্যাসিড ক্ষরণের পরিমাণ কমিয়ে দেয়। এর ফলে পরিপাকক্রিয়া সুষ্ঠুভাবে সম্পাদিত হতে পারে।

২. যে কোনও মিষ্টি খাবার খেলেই শরীরে সেরিটোনিন নামের হরমোন ক্ষরিত হয়। এই হরমোন নিউরোট্রান্সমিটার হিসেবে কাজ করে। অর্থাৎ মিষ্টি খাবার খেলে আপনার মধ্যে সুখ এবং আনন্দের অনুভূতি তৈরি হয়। এই অনুভূতি শরীরের সামগ্রিক সুস্থতার জন্য অত্যন্ত জরুরি।

৩. ভারি খাবার খাওয়ার পরে আমাদের শরীরে হাইপোগ্লাইসিমিয়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়। এই সময়ে শরীরের ব্লাড প্রেসার অত্যন্ত কমে যায়, এবং তার ফলে কখনও কখনও শরীরে সাময়িক অস্বস্তি তৈরি হতে পারে। কিন্তু মিষ্টি খেলে শরীরে রক্তচাপের ভারসাম্য তৈরি হয়। ফলে কোনও রকম অসুস্থতা বা অস্বস্তির সম্ভাবনা থাকে না।

 

”যশোরের বিখ্যাত সাদেক গোল্লা (রসোগোল্লা), সাতক্ষীরার বিখ্যাত সন্দেশ এবং সুন্দরবনের বিখ্যাত খলিশা ফুলের মধু “পদ্ম মধু” স্বাদ উপভোগ করুন এখন ঢাকায় বসেই।।”

অর্ডার করতে ক্লিক করুন: SatkhiraShop.com

NO COMMENTS